আমি প্রত্যেক ভোটারের মর্যাদা দিতে চাই, শোষণ করতে আসেনি : ইয়াকুব আলী এমপি

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি :

সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এস এম ইয়াকুব আলী বলেছেন, গত ১০ বছর যারা অসহায় ছিলেন এবং লাঞ্ছিত হয়েছেন আমি তাদের পাশে দাঁড়াতে এসেছি। আমি মণিরামপুরেরই সন্তান, শাসক হয়ে শোষণ করতে আসেনি। এই মণিরামপুরে এতদিন দু:শাসন চলেছে। দু:শাসন বন্ধ করে মণিরামপুরে সাধারণ মানুষের মাঝে আবারও শান্তি ফিরিয়ে আনতে চাই। যারা আমাকে ভোট দিয়ে জয়ী করেছেন আমি প্রত্যেকটি ভোটের সমমর্যাদা দিতে চাই। এছাড়া যারা আমাকে ভোট দেননি আমি তাদের পাশেও থাকবো। মণিরামপুরে আর কাউকে অন্যায়—অত্যাচার করতে দেওয়া হবে না।

শনিবার বিকেলে উপজেলার পাঁচপোতা পার বাজার মাঠে গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ এইসব কথাগুলো বলেন। হরিহরনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কর্তৃক আয়োজিত গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেবয়ারম্যান মাস্টার জহুরুল ইসলাম।
আলোচনা অনুষ্ঠানে এমপি আরও বলেন, আমি পরিকল্পনা করছি আধুনিক গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে মণিরামপুরে উন্নয়নে কাজ করবো। আমি রাজনীতি শুরু করেছি, আমার উপজেলার খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষের ভাগ্যন্নোয়নে কাজ করার জন্য। আমি নির্বাচনের সময় প্রতিটি গ্রাম ঘুরেছি। দেখেছি রাস্তাঘাট নিয়ে মানুষের কত কষ্ট—দুর্দশা। কথা দিচ্ছি এই কষ্ট আর থাকবে না। এর আগে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এস এম ইয়াকুব আলীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

আরও পড়ুনঃস্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সবসময় অসহায়ের মুখে হাসি ফোঁটাতে ব্যস্ত থাকে : ইয়াকুব আলী এমপি

হরিহরনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তফা কামাল ও শরিফ আহমেদ শরিফের পরিচালনায় আলোচনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক ফারুক হোসেন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জি এম মজিদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা মিকাইল হোসেন, গৌর কুমার ঘোষ, সন্দ্বীপ ঘোষ, ঝাঁপা ইউপি চেয়ারম্যান শামসুল হক মন্টু, হরিহরনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ ও আইন বিষয়ক সম্পাদক মহসিন কবীর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *